কেশবপুরে রোগ যন্ত্রণা সইতে না পেরে এক নারীর আত্মহত্যা

আজিজুর রহমান, কেশবপুর(যশোর)প্রতিনিধি: কেশবপুরে রোগ যন্ত্রণা সহ্য করতে না পেরে মলুদা বেগম নামে এক নারী আত্মহত্যা করেছেন। বুধবার সন্ধ্যায় তিনি গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন। এ ঘটনায় থানায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

 

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার সাগরদাঁড়ি গ্রামের তাসের আলীর স্ত্রী মলুদা বেগম (৬২) দীর্ঘদিন ধরে শ্বাসকষ্ট জনিত রোগে ভুগছিল। গত বুধবার সন্ধ্যায় শ্বাসকষ্ট বেড়ে গেলে সহ্য করতে না পেরে বসতঘরের আড়ার সঙ্গে শাড়ি পেচিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন।

 

মলুদা বেগমের ছেলে রবিউল ইসলাম বলেন, তার মাকে ডাক্তার দেখানোর পরও রোগ ভালো হয়নি। ইতিপূর্বে কয়েকবার রোগ যন্ত্রণা সহ্য করতে না পেরে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিলেন। সম্প্রতি রোগ যন্ত্রণা বেড়ে যাওয়ায় বুধবার সন্ধ্যায় বাড়ির সকলের অগোচরে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন।

 

এ ব্যাপারে কেশবপুর থানার ডিউটি অফিসার উপপরিদর্শক তাপস কুমার রায় বলেন, এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

SHARE