কেশবপুরে বিরোধীয় জমি দখল করে ঘর নির্মাণ পুলিশ হস্তক্ষেপে বন্ধ

আজিজুর রহমান, কেশবপুর (যশোর): কেশবপুর উপজেলার নুড়িতোলা বাজারে এলাকার প্রভাবশালীরা একদল ভাড়াটে এনে এক কৃষকের জমি জবর দখল করে দোকান ঘর নির্মাণের চেষ্টা করলে পুলিশি হস্তক্ষেপে তা বন্ধ হয়ে গেছে। এ ঘটনায় জমির মালিক শরিফুল ইসলাম বাদি হয়ে থানায় অভিযোগ করেছে।

 

 

 

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, ১৯৯৩ সালে উপজেলার বেলোকাটি গ্রামের রহমততুল্লা খা কেশবপুর পাঁজিয়া সড়কের পাশে নুড়িতোলা বাজারে জনৈক পরশতুল্লা সরদারের কাছ থেকে ৩৪ শতক জমি কোবলা দলিল মূলে ক্রয় করেন। সেই থেকে তার ছেলে শরিফুল ইসলাম জমি ভোগ দখল করে আসছেন। সম্প্রতি ব্রাহ্মণডাঙ্গা গ্রামের ইউসুপ গাজীর ছেলে নজরুল ইসলাম ওই জমি জবর দখলের হুমকি দিতে থাকে।

 

 

এরই ধারাবাহিকতায় গত শুক্রবার সকালে নজরুল ইসলাম বিভিন্ন এলাকা থেকে ভাড়াটে লোকজন এনে লাঠি, সাবল, দা, কুড়াল নিয়ে ওই জমিতে জোরপূর্বক ঘর নির্মাণ কাজ চালিয়ে যেতে থাকে। খবর পেয়ে শরিফুল ইসলাম তার জমিতে ঘর নির্মাণ কাজ বন্ধ করতে বললে ওই ভাড়াটেরা তাকে খুন, জখমের হুমকি দিয়ে তাড়িয়ে দেয়। এ সময় তিনি দ্রæত আইনি সহায়তা পেতে সরকারের ৯৯৯ নম্বরে ফোন করে ঘটনাটি জানায়।

 

 

এরই ভিত্তিতে কেশবপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে দোকান ঘরের নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দেয়। এ ঘটনায় জমির মালিক শরিফুল ইসলাম বাদি হয়ে নজরুল ইসলামসহ অজ্ঞাত ৩০/৪০ জনের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ করেছে। এ ব্যাপারে প্রতিপক্ষ নজরুল ইসলাম বলেন, শরিফুল ইসলামের ভাইয়ের কাছ থেকে আমি জমি কিনে ঘর করছিলাম। কিন্তু পুলিশ নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দিয়েছে। কেশবপুর থানার সহকারি উপপরিদর্শক সোহেল রানা বলেন, সরেজমিনে গিয়ে ঘরের নির্মাণ কাজ বন্ধ করে পরিস্থিতি শান্ত করা হয়েছে। বিষয়টি নিরসনে আগামী মঙ্গলবার উভয় পক্ষেকে থানায় ডাকা হয়েছে।

SHARE