আশাশুনিতে একটি অসহায় পরিবারের উপর ঘন্টা ব্যাপী তাণ্ডবে আহত-৪ 
আশাশুনি প্রতিনিধি:  আশাশুনি উপজেলার কাদাকাটি ইউনিয়নের তেঁতুলিয়া বাজারস্থ একটি ভূমির পরিবার চাঁদা দিতে অস্বীকার করায় একই গ্রামের সবুর বাহিনীর লোকেরা ঘন্টাব্যাপী তাণ্ডব চালিয়ে ৪ জনকে আহত করেছে। শুক্রবার (৮ ডিসেম্বর) সন্ধ্যা ৭টার দিকে ইউপি চেয়ারম্যান দ্বীপের সামনে প্রথম দফায় হামলার ঘটনা ঘটে। পরে রাত ৮টার দিকে দ্বিতীয় দফায় চাঁদার টাকা না পেয়ে ক্ষিপ্ত হয়ে ভূমিহীন ইয়াকুব গাজীর বাড়ি লুটপাট ভাঙচুরের ঘটনা ঘটাতে থাকে।
উপায়ন্ত না পেয়ে হামলার শিকার ইয়াকুব গাজীর ছেলে রবিউল ইসলাম ৯৯৯ ফোন করেন। ওই রাতে আশাশুনি থানার এসআই বিশ্বজিৎ ঘোষ সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হওয়ার আগেই সবুর বাহিনীর লোকেরা শটকে পড়ে।
পুলিশের সহযোগিতায় আহত ইয়াকুব গাজী, ছেলে নুর ইসলাম, রবিউল ইসলাম ও স্ত্রী রাবেয়া খাতুনকে আশাশুনি এবং সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। (ওসি) বিশ্বজিৎ কুমার অধিকারী বলেন, ঘটনার বিষয় জানতে পেরে রাতেই পুলিশ পাঠিয়েছি। অভিযোগ পেলে তদন্ত-পূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। উল্লেখ্য তেঁতুলিয়া বাজারের মৃত নুর মোহাম্মদ গাজীর ছেলে আব্দুস সবুর, শফিকুল ইসলাম, আব্দুস সালাম, আব্দুল জলিল, খলিল গাজী, রউফ গাজী, নাদিম গাজী ও রানা এদের ভয়ে পরিবারটি আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে পড়েছে। যে কোন মুহূর্তে আবারো হামলার শিকার হতে পারে এ ভূমিহীন পরিবারটি এমনটাই পার্শ্ববর্তী সাধারন মানুষের অভিযোগ।
এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান ঘটনা সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, শুক্রবার রাতে উভয় পক্ষের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। ইয়াকুব গাজী নামের একজন ব্যক্তি আহত হয়েছে। অভিযুক্ত আব্দুস সবুর বলেন, আমি ঘটনার সময় বাড়িতে ছিলাম না। শুনেছি উভয় পক্ষের মধ্যে তুচ্ছ ঘটনা ঘটেছে।
এদিকে সবুর বাহিনীর ভয়ে ক্ষতিগ্রস্ত ভূমিহীন পরিবারটি থানায় অভিযোগ দিতে সাহস পাচ্ছে না। বিষয়টি তদন্তপূর্বক স্থানীয় প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছে এলাকাবাসী।