• বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ০৭:০০

টাইগাররা যুক্তরাষ্ট্রে টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলবে

প্রতিনিধি: / ৮৯ দেখেছেন:
পাবলিশ: বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪

স্পোর্টস: টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে বাংলাদেশ দলের ম্যাচ অনুশীলনের কোনো ঘাটতির সুযোগ রাখছে না বিসিবি। শ্রীলঙ্কা ও জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজ তো চ‚ড়ান্ত হয়েই আছে। এ ছাড়া বিশ্বকাপের ঠিক আগে টুর্নামেন্টের সহ-স্বাগতিক যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে সেখানে তিন ম্যাচের সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ, জানালেন বিসিবির ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের প্রধান জালাল ইউনুস। আগামী জুনে এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ হবে যৌথভাবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও যুক্তরাষ্টে। ‘ডি’ গ্রুপে বাংলাদেশের চার ম্যাচের প্রথম দুটি হবে যুক্তরাষ্ট্রে। ওয়েস্ট ইন্ডিজে বাংলাদেশ নিয়মিতই খেলে থাকে। যুক্তরাষ্ট্রে খেলার অভিজ্ঞতা বলতে আছে ২০১৮ সালে ফ্লোরিডায় ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দুটি ম্যাচ। কন্ডিশনের সঙ্গে মানিয়ে নিতেই তাই একটু আগেভাগে সেখানে গিয়ে সিরিজ খেলার ভাবনা ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের। গত ওয়ানডে বিশ্বকাপ চলার সময় দলের ব্যর্থতার একটি কারণ হিসেবে প্রস্ততির ঘাটতি কথা বলেছিলেন তখনকার অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। প্রধান কোচ চান্দিকা হাথুরুসিংহে নতুন মেয়াদে কাজ শুরু করেন বিশ্বকাপ শুরুর মাত্র ৮ মাস আগে। প্রস্তুতির কোনো ঘাটতি ছিল বলে অবশ্য মনে করেন না জালাল ইউনুস। কোচের বদলকেও খুব গুরুত্বপূর্ণ কারণ তিনি মনে করেন না। ঢাকায় একটি অনুষ্ঠানে বুধবার সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের প্রধান জানালেন, প্রস্তুতির ঘাটতি তারা এবারও রাখবেন না। “প্রস্তুতির ঘাটতি গতবারও ছিল না। কোচ না থাকলেও ধারাবাহিকতা তো ছিল। আমাদের প্রস্তুতির ধারাবাহিকতা ছিল। কোচ না থাকলে কী হবে! প্রস্তুতির ঘাটতি ছিল না। আমরা খারাপ করেছি মানে এই নয় যে কোচ কম সময় পেয়েছে বলেই পারফরম্যান্স খারাপ হয়েছে। এটা কারণ নয়।” “সামনে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে আমরা যেভাবে যাচ্ছি, সামনে আমরা জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ৫টি টি-টোয়েন্টি খেলব। এখন তো বিপিএল চলছে। এরপর আমরা পরিকল্পনা করছি, যুক্তরাষ্ট্র দলের সঙ্গে আমরা সেখানে ৩টি ম্যাচের সিরিজ খেলব। এটাও আমাদের অনুশীলন ও প্রস্তুতির মধ্যেই পড়ে।” বিপিএল শেষ হওয়ার পর দুই দিন পর শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ। এরপর লঙ্কানদের সঙ্গে ওয়ানডে ও টেস্ট সিরিজ শেষে আগামী মাসের শেষ দিকে হবে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ৫ ম্যাচর টি-টোয়েন্টি সিরিজ, যেটি শেষ হবে মে মাসের শুরুতে। এরপর মে মাসের শেষ দিকে হতে পারে যুক্তরাষ্টের বিপক্ষে ওই সিরিজ। বিশ্বকাপে বাংলাদেশ প্রথম ম্যাচটি খেলবে ডালাসের গ্র্যান্ড প্রেইরি স্টেডিয়ামে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে। এই স্টেডিয়াম প্রতিষ্ঠিত হয়েছে ১৬ বছর আগে। তবে ক্রিকেটের জন্য নতুন করে সংস্কারের পর গত বছর মেজর লিগ ক্রিকেটের খেলা হয়েছে এখানে। দ্বিতীয় ম্যাচ দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে নিউ ইয়র্কের নাসাউ কাউন্টি ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট স্টেডিয়ামে। বিশ্বকাপের জন্য এই মাঠের সংস্কার কাজ শুরু হয়েছে স¤প্রতি। গ্রæপ পর্বে বাংলাদেশের পরের দুই ম্যাচ সেন্ট ভিনসেন্টে নেদারল্যান্ডস ও নেপালের বিপক্ষে। আগামী মাসের শ্রীলঙ্কা সিরিজে সাকিব আল হাসানের না থাকার ব্যাপারটিও নিশ্চিত করে দিয়েছেন জালাল ইউনুস। টি-টোয়েন্টি সিরিজ ও ওয়ানডে সিরিজের প্রথম দুই ম্যাচের দলে তিনি ছিলেন না আগে থেকেই। ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের প্রধান জানিয়েছেন, টেস্ট সিরিজ থেকেও বিরতি নিয়েছেন সাকিব।


এই বিভাগের আরো খবর
https://www.kaabait.com